লিগটা যেনো একদম নিজেদের করে নিয়েছে তারা। প্রতি মৌসুমেই শিরোপা ঘরে তুলছে সহজেই। এবারো তার ব্যতিক্রম হলোনা। তিন ম্যাচ হাতে রেখেই টানা দশমবারের মত বুন্দেসলিগার শিরোপা ঘরের তুললো বায়ার্ন মিউনিখ।

শিরোপা উদযাপন করতে আলিয়াঞ্জ অ্যারেনায় শনিবার রাতে দরকার ছিল শুধু জয়। সে লক্ষ্যে দাপুটে জয় তুলে নিয়েছে নাগেলসমানের দল। কোনো রকম প্রতিরোধ গড়তে পারেনি দুইয়ে থাকা বরুশিয়া ডর্টমুন্ড। ঘরের মাঠে ৩-১ গোলের জয় শিরোপা উল্লাস করেছে বায়ার্ন মিউনিখ।  

৩১ ম্যাচে ৭৫ পয়েন্ট নিয়ে শিরোপা নিশ্চিত হল বায়ার্ন মিউনিখের। সমান ম্যাচে ৬৩ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় অবস্থানে থেকে রানার্সাপ হবার পথে বরুশিয়া ডর্টমুন্ড।  

ঘরের মাঠে ৫৯ ভাগ বলের দখল নিয়ে ডর্টমুন্ডের পোস্টে ১৪ শটের ছয়টি লক্ষ্যে রাখে বায়ার্ন। ডর্টমুন্ড তেমন সুযোগ তৈরি করতে পারেনি। সাতটি শট নিয়ে দুটি লক্ষ্যে রাখতে সক্ষম হয়।

১৫ মিনিটে সার্জ গিনাব্রির গোলে এগিয়ে যায় বায়ার্ন। কিমিচের কর্নারে গোরেতজকার পা ছুঁয়ে এজ অফ দ্যা বক্স থেকে গতির শটে জাল খুঁজে নেন জার্মান এই ফুটবলার। ৩৪ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করে রবার্তো লেভানদোস্কি। ৫৩ মিনিটে পেনাল্টি থেকে এমরে চানের গোল ব্যবধান ২-১ করে বরুশিয়া ডর্টমুন্ড। তবে এই গোল ম্যাচে ফেরার জন্য যথেষ্ঠ ছিলনা। উলটো ৮৩ মিনিটে জামাল মুসিয়ালার গোল বায়ার্নের জয় ও শিরোপা নিশ্চিত করে।  

২০১২-১৩ মৌসুম থেকে শুরু করে সর্বশেষ দশ আসরেই লিগ শিরোপা নিজেদের করে নিল বায়ার্ন মিউনিখ। এ নিয়ে ৩২তম বারের মত জার্মান লিগ শিরোপা ঘরে তুললো বাভারিয়ানরা।