চলতি বছর বাংলাদেশ বিমানের প্রথম হজ ফ্লাইট (ইএ-৩০০১) রবিবার বিকেলে সৌদি আরবের জেদ্দায় কিং আবদুল আজিজ বিমান বন্দরের হজ টার্মিনালে পৌঁছেছে। ওই ফ্লাইটে ৪১০ জন হজযাত্রী ছিলেন। বাংলাদেশি ওই হজযাত্রীদের বিমানবন্দরে স্বাগত জানান সৌদিতে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী।

জেদ্দায় বাংলাদেশ কনস্যুলেটের কনসাল জেনারেল মোহাম্মদ নাজমুল হক, রিয়াদে বাংলাদেশ দূতাবাস, জেদ্দায় বাংলাদেশ কনস্যুলেট ও বাংলাদেশ হজ মিশনের অন্যান্য কর্মকর্তারা এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে রবিবার সকালে ফ্লাইটটি ঢাকায় হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ছেড়ে যায়।

বাংলাদেশি হজযাত্রীদের স্বাগত জানাতে বিমানবন্দরে উপস্থিত ছিলেন সৌদি আরবের হজ ও ওমরাহবিষয়ক ভাইস মিনিস্টার আবদুল ফাত্তাহ মাশহাত, ডেপুটি মিনিস্টার আব্দুল আজিজ ওয়াজ্জান, সৌদি আরবের জেনারেল অথরিটি অফ সিভিল এভিয়েশনের প্রেসিডেন্ট আবদুল আজির বিন আবদুল্লাহ আল দুয়াইলিজ, ইমিগ্রেশন ও পাসপোর্ট অধিদপ্তরের মহাপরিচালক, হজ ও ওমরাহবিষয়ক জেদ্দা অঞ্চলের মহাপরিচালক ইঞ্জিনিয়ার আব্দুর রহমান আল গান্নাম, কিং আবদুল আজিজ বিমান বন্দরের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আয়মান আবুবা, বিমান বন্দরের মহাপরিচালক ও হজ টার্মিনালের পরিচালকসহ অন্যান্য কর্মকর্তারা।

রিয়াদে বাংলাদেশ দূতাবাস জানায়, হজ যাত্রীদেরকে বিমান বন্দরে সৌহার্দ্যপূর্ণ পরিবেশে ফুল দিয়ে স্বাগত জানানো হয়। এ সময় হজযাত্রীদের চকোলেট, জুস, পানি পরিবেশন করা হয়। বাংলাদেশি হজ যাত্রীরা বিমান বন্দরের ব্যবস্থাপনা নিয়ে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেন।

রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী হজযাত্রীদের শুভকামনা জানান। তিনি যে কোনো প্রয়োজনে বাংলাদেশ দূতাবাস, কনস্যুলেট ও বাংলাদেশ হজ মিশন সবসময় হজযাত্রীদের পাশে রয়েছে বলে আশ্বাস দেন।