পিয়াস খান- কুমিল্লা

দেশের ১২ টি জেলার ৭০ টি উপজেলা বন্যায় প্লাবিত হয়েছে। এতে ২ জনের প্রাণহানির ঘটনা ঘটেছে বলে জানিয়েছেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী এনামুর রহমান। রোববার দুপুরে সচিবালয়ে সাংবাদিকদের এক ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানান তিনি।

এসময় মন্ত্রী বলেন, ১২২ বছরের ইতিহাসে সিলেট ও সুনামগঞ্জে এই ধরনের পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়নি। এতে সিলেটের ৬০ শতাংশ ও সুনামগঞ্জের ৯০ শতাংশ প্লাবিত হয়েছে। ৪০ লাখ মানুষ পানিবন্দী আছেন। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় সেনা, নৌ, ফায়ার সার্ভিস ও কোস্ট গার্ডের ৫২ টি নৌযান উদ্ধারে কাজ করছে।

এনামুর রহমান আরো জানান, এই পর্যন্ত উদ্ধার করা হয়েছে ১ লাখ মানুষ। যার মধ্যে সুনামগঞ্জের ৭৫ হাজার এবং সিলেটের ৩০ হাজার মানুষকে উদ্ধার করা হয়েছে। এ ছাড়া সিলেটে বেড়াতে গিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংবাদিকতা বিভাগের ২১ জন শিক্ষার্থীকে উদ্ধার করেছে সেনাবাহিনীর তিনটি বোট।

মন্ত্রী বলেন, এখনো পর্যন্ত বন্যার ঘটনায় সিলেট ও সুনামগঞ্জে আড়াই কোটি টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। প্রয়োজনে আরো বরাদ্দ দেয়া হবে। তবে, যে বরাদ্দ দেয়া হয়েছে বন্যা প্রবল হওয়ায় কারনে তা পৌছাতে বেগ পোহাতে হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

দুর্যোগ ব্যবস্থাপণা প্রতিমন্ত্রী বলেন, সিলেটের বন্যা পরিস্থির সামান্য অগ্রগতি হলেও সুনামগঞ্জের অবস্থা অপরিবর্তিত। এছাড়া হবিগঞ্জ, মৌলভীবাজার পানি বাড়ছে। ২ দিন পর এই অঞ্চলে পানি কমবে বলে পূর্বাভাস দেয়া হয়েছে বলেও তিনি জানান।

দেশের এমন অবস্থায় মানুষের জীবন কষ্টের চরমে পৌছে গিয়েছে। সিলেটের বর্তমান পরিস্থিতিতে বিসিবির ফ্যাসিলিটিস কমিটির সম্মাণিত সদস্য সচিব এবং কুমিল্লা জেলা ক্রিকেট কমিটির সভাপতি সাইফুল আলম রনি একটি মহৎ উদ্যোগ গ্রহন করেছেন। সাইফুল আলম রনি কিছু বন্ধু মহল একত্রিত হয়ে একটি ফান্ড করেছেন বন্যার্তদের সাহায্যের জন্য।

সাইফুল আলম রনি সর্বস্তরের মানুষকে সিলেটবাসীর পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান জানান।