মুরাদনগর প্রতিনিধি:সামসু উদ্দিন সরকার (বাবু)

আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার ধামগড় ইউনিয়ন পরিষদে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী মুরাদনগর উপজেলা আওয়ামী যুবলীগ নেতা মোঃ খাইরুল ইসলাম মিনহাজ। ইতিমধ্যে তিনি ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামে ঘুরে ঘুরে প্রচার-প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন ।উপজেলা মুগসাইর গ্রামের কৃতি সন্তান মোঃ খাইরুল ইসলাম মিনহাজ। ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার আগেই ইতিমধ্যেই মানসিক প্রস্ততি ও দলীয় নেতাকর্মীদের মাঝে প্রচারণার প্রস্ততি নিচ্ছেন তিনি।এবার ইউনিয়নবাসী’রা বলছেন, মহামারি করোনাভাইরাস কালে সততা,দক্ষতা ও দায়িত্বশীলতার পরিচয় দিয়েছেন তিনি। জনগণের ন্যায্য অধিকার প্রতিষ্ঠায় সর্বদা অগ্রনী ভূমিকা পালন করেছেন দলের ত্যাগী ও নিবেদিত প্রান মোঃ খাইরুল ইসলাম মিনহাজ। ওই নির্বাচনী এলাকার সর্বস্তরের জনগণ তাঁকে চেয়ারম্যান পদে দেখতে চান। জনগণের এ আবদার রক্ষার্থে মোঃ খাইরুল ইসলাম মিনহাজ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী হিসেবে অংশগ্রহণ করার প্রস্ততি নিচ্ছেন।

তিনি বলেন, আমি দীর্ঘদিন ধরে বঙ্গবন্ধুর অাদর্শের একজন সৈনিক হিসেবে দলের জন্য মাঠে কাজ করে যাচ্ছি।আমাদের অভিভাবক কুমিল্লা-৩ (মুরাদনগর-বাঙ্গরা) আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য আলহাজ্ব ইউসুফ আবদুল্লাহ হারুন এফসিএ ও উপজেলা পরিষদ আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের হাতেকে শক্তিশালী ও উন্নয়ন মূলক কাজ গুলো আরো গতিশীল করতে আমি জনগণের যে সমস্য গুলো আছে, সেগুলো সমাধান করতে আমি প্রার্থী হতে চাই। ধামগর ইউনিয়নবাসীর সেবক হতে চাই।তিনি আরো বলেন, “আগামী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী হয়ে জনগণের পাশে দাড়াতে চাই” তাঁদের সুখ দুঃখ ও বিপদ-আপদে পাশে থাকতে চাই।মোঃ: খাইরুল ইসলাম মিনহাজ উনি আরো বলেন আলহাজ্ব ইউসুফ আবদুল্লাহ হারুন এফসিএ আমার অভিভাবক এবং আমার রাজনীতির গুরু।আগামী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন ২০২১ সালে হলে, আমি তৃণমূল আওয়ামী লীগের সমর্থন কামনা করি। জানা যায়, করোনা ভাইরাসের মহামারীর সময় সাধ্যানুযায়ী কর্মহীন খেটে খাওয়া অসহায় পরিবার গুলোর মাঝে খাদ্য সামগ্রী সহায়তা প্রদান করেন উপজেলা যুবলীগ নেতা এবং বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মোঃ খাইরুল ইসলাম মিনহাজ ।

banner