২০৩০ সালের মধ্যে সব সাংবাদিককে প্রশিক্ষণের আওতায় আনা হবে

0
55

বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিলের চেয়ারম্যান বিচারপতি মোহাম্মদ মমতাজ উদ্দিন আহমেদ বলেছেন, রাষ্ট্রের চতুর্থ স্তম্ভ হিসেবে কাজ করে গণমাধ্যম। আর সাংবাদিকরা জাতির কল্যাণে কাজ করেন। তাই সাংবাদিকতা একটি সম্মানজনক পেশা। তাঁদের পেশাগত দক্ষতা বাড়ানো, অভাব-অভিযোগ নিরসনে কাজ করছে প্রেস কাউন্সিল। সারা দেশে সাংবাদিকদের তালিকা প্রণয়নের কাজ করা হচ্ছে। ২০৩০ সালের মধ্যে সব সাংবাদিককে প্রশিক্ষণের আওতায় আনা হবে। তাঁদের কল্যাণে আরো বেশকিছু পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার কিশোরগঞ্জ কালেক্টরেট মিলনায়তনে জেলায় কর্মরত সাংবাদিকের জন্য ‘সাংবাদিকতার নীতিমালা, অনুসন্ধানী সাংবাদিকতায় লক্ষণীয় বিষয়সমূহ ও তথ্য অধিকার আইন অবহিতকরণ’ শীর্ষক কর্মশালা উদ্বোধন করে এসব কথা বলেন প্রেস কাউন্সিলের চেয়ারম্যান। বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিলের আয়োজনে ও জেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় কর্মশালাটি অনুষ্ঠিত হয়। 

এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কিশোরগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য রেজওয়ান আহাম্মদ তৌফিক। 
চেয়ারম্যান আরো বলেন, যতোদিন পৃথিবী থাকবে, রাষ্ট্র থাকবে, ততদিন সাংবাদিকতা থাকবে। সমাজের যেকোনো অন্যায়, অবিচার ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে সাংবাদিকরা ভ্যানগার্ড হয়ে কাজ করবেন।

কিশোরগঞ্জের জেলা প্রশাসক সারওয়ার মুর্শেদ চৌধুরীর সভাপতিত্বে কর্মশালায় অন্যদের মধ্যে বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিলের সচিব শাহ আলম, কিশোরগঞ্জের পুলিশ সুপার মাশরম্নকুর রহমান খালেদ, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) আব্দুল্লাহ আল-মাসউদ বক্তব্য দেন। দিনব্যাপী কর্মশালায় কিশোরগঞ্জের ৪৬ জন সাংবাদিক অংশ নেন। প্রশিক্ষণ শেষে তাঁদের মাঝে সনদপত্র বিতরণ করা হয়।

মন্তব্য করুন

আপনার মতামত লিখুন
Please enter your name here