banner

ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজের বাঘমারা ছাত্র হোস্টেলে আজ বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ছাত্রলীগ সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদক গ্রুপের মাঝে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে আহত হয়ে দুজন ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন বলে জানা গেছে।

আহতরা হলেন রুহিত এবং সাফিন। এদের মাঝে রুহিতকে ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিটে নেওয়া হয়। 

জানা গেছে সিট বাণিজ্য এবং ক্যাম্পাসে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে এ ঘটনা ঘটে। তবে রাত ৯টার দিকে পরিস্থিতি শান্ত হয়ে আসে।

কোতোয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহ কামাল আকন্দ জানান, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। হোস্টেলে পুলিশ মোতায়েন আছে।

স্থানীয় সূত্রগুলো জানায়, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার পর কতিপয় ছাত্রকে মেডিক্যালের বাঘমারা হোস্টেলে তুলতে যায় ছাত্রলীগ মেডিক্যাল কলেজ শাখার সভাপতি অনুপম সাহা। বিষয়টিকে বেআইনি দাবি করে এর প্রতিবাদ জানায় সাধারণ সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল হাসান। এ নিয়ে বাগবিতণ্ডা থেকে ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া ও ভাঙচুরের এক পর্যায়ে সংঘর্ষ শুরু হয়। এতে উভয় পক্ষেরই অন্তত ১০ জন আহত হয়।

সংঘর্ষের সময় হোস্টেলে এবং আশপাশে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। সংশ্লিষ্টরা জানায়, আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে এই দুই নেতার মাঝে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলছে। নিরীহ শিক্ষার্থীরা এদের কাছে জিম্মি হয়ে আছে। প্রায়ই এ দুপক্ষে বিরোধের শিকার হয় সাধারণ শিক্ষার্থীরা।

banner