banner

সোহেল রানা, মালয়েশিয়া প্রতিনিধি।

নতুন রাজনৈতিক দল গঠনের ঘোষণা দিয়েছেন মালয়েশিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদ। শুক্রবার (০৭ আগস্ট) নতুন রাজনৈতিaক দল গঠনের ঘোষণা দেন বর্ষীয়ান এ রাজনীতিবিদ।

শুক্রবার বিকেলে গণমাধ্যমে এ বিষয়ে কথা বলেন মাহাথির। সঙ্গে ছিলেন মাহাথিরের ছেলে মুখরিজ মাহাথির। ৯৬ বছর বয়সী মাহাথির বলেন, তিনি এখনো নতুন রাজনৈতিক দলের নিবন্ধন করেননি। তবে শিগগিরই দলটির নিবন্ধন সম্পন্ন করবেন বলে জানান। নতুন রাজনৈতিক দলের নাম কি হবে, কারা হবেন দলের নীতিনির্ধারক বা সদস্য সেসব বিষয়েও কোনো মন্তব্য করেননি মাহাথির। তবে দলের প্রেসিডেন্ট হবেন মুখরিজ মাহাথির। তা স্পষ্ট করে জানিয়েছেন মালয়েশিয়ার এ সাবেক প্রধানমন্ত্রী।
‌‌‌’নতুন রাজনৈতিক দল হবে সর্বজনীন এবং মধ্যপন্থী। আমরা বিশ্বাস করি মালয়েশিয়ানরা সমতাভিত্তিক অধিকার চান। আমরা কোনো রাজৈনতিক দলের সঙ্গে জোট করতে চাই না, পেরিকাতান ন্যাশনাল বা পাকাতান হারাপানের মতো।’ বলেন মাহাথির। ২০১৮ সালের সাধারণ নির্বাচনে জয়ী হয়ে জোট সরকারের অধীনে রাষ্ট্র পরিচালনা করেন মাহাথির।

মাহাথির আরো বলেন, আগামী নির্বাচনে এককভাবে নতুন দল অংশ নেবে। পরে তিনি টুইটে একটি ছবি প্রকাশ করেন। যেখানে সবার পরনে নীল রঙের পোশাক ছিল। যাদের মধ্যে মুখরিজ, সাবেক শিক্ষামন্ত্রী মাজলে মালিক এবং সাবেক উপ-অর্থমন্ত্রী আমিরুদ্দিন হামজাহ ছিলেন।
চলতি বছরের শুরুতে মালয়েশিয়ান ইউনাইটে ইন্ডিজেনিয়াস পার্টি বা পার্টি প্রিভূমি বারসাতু মালয়েশিয়া থেকে বরখাস্ত হন মাহাথির। তার পরিপ্রেক্ষিত নতুন দল গঠন করার ঘোষণা দিলেন দীর্ঘকালীন মালয়েশিয়ার রাষ্ট্র ক্ষমতায় থাকা মাহাথির মোহাম্মদ।

২০১৬ সালে ‌’বারসাতু’ পার্টি নামে একটি দল গঠন করেন মাহাথির। ২০১৮ সালের নির্বাচনে পাকাতান হারাপান জোটের নেতৃত্ব দেন তিনি। জয় পাওয়ার পর তার নেতৃত্বে সরকার গঠন হয়। পরে তিনি দলের চেয়ারম্যানের পদ থেকে সরে দাঁড়ান। চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে পদত্যাগ করেন মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকেও। দলীয় কোন্দলের কারণে ভেঙে যায় তার সরকার।
শুক্রবারের সংবাদ সম্মেলনে মাহাথির বলেন, ‘মালয়েশিয়ায় বেশ কয়েকটি স্বীকৃত রাজনৈতিক দল রয়েছে। এসব দল দীর্ঘদিন ধরে নিজের স্বার্থ রক্ষায় রাষ্ট্র ক্ষমতাকে ব্যবহার করছে। জনগণের সেবা করার মূল উদ্দেশ্য তারা ভুলে গেছে।’
প্রধানমন্ত্রী পদ থেকে পদত্যাগ করে পার্লামেন্টে বিরোধীদলকে সমর্থন দেন মাহাথির। এর পরিপ্রেক্ষিতে বারসাতু পার্টি মাহাথিরসহ ছয়জনকে বহিষ্কার করে। এদিন সদস্যপদ বাতিল করায় বর্তমান প্রধানমন্ত্রী মহিউদ্দিন ইয়াসিনসহ তিনজনের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন মাহাথির মোহাম্মদ। এ মামলায় মাহাথির ছাড়াও বাদী পক্ষে আরো ৫ জন রয়েছে।
এর আগে ১৯৮১ থেকে ২০০৩ সাল পর্যন্ত মালয়েশিয়ার ৪র্থ প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন মাহাথির। তার শাসনামলে উন্নয়নের ভিত্তি পায় মালয়েশিয়া। মাহাথিরকে তাই আধুনিক মালয়েশিয়ার রূপকারও বলা হয়। দীর্ঘ বিরতির পর ২০১৮ সালে আবারো রাজনীতিতে ফেরেন তিনি। ৭ম প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন ২০১৮ সালের মে থেকে ২০২০ সালের মার্চ পর্যন্ত।

banner