banner

বলছি তরুন প্রজন্মের একজন পরিচিত মুখ তমাল নুহু ইসলাম এর কথা।

প্রযুক্তির হাত ধরে মানুষ অনলাইনের ওপর নির্ভরশীল হচ্ছে। ফলে ডিজিটাল মার্কেটিংয়ের গুরুত্ব দিন দিন বেড়েই চলেছে। তাই অনেক তরুণই ক্যারিয়ার হিসেবে ডিজিটাল মার্কেটিংকে বেছে নিচ্ছেন। এ ক্যারিয়ার একজন মানুষকে একদিকে যেমন প্রযুক্তিপ্রেমী করে তোলে; অন্যদিকে জীবনকে করে স্বাচ্ছন্দ্যময়। এমনই একজন ২৫ বছরের তরুণ তমাল নুহু ইসলাম।

যিনি নিজেকে সফল ডিজিটাল মার্কেটার ও উদ্যোক্তা হিসেবে গড়ে তুলেছেন। তার জন্ম পটুয়াখালী জেলায়।

ছোটবেলা থেকেই তিনি উদ্ভাবন নিয়ে চিন্তা-ভাবনা ও গবেষণা করতে পছন্দ করেন। তিনি আশা করেন, কঠোর পরিশ্রম এবং লক্ষ্য তাকে সাফল্যের দ্বারপ্রান্তে নিয়ে যাবে। তার উদ্যোগ সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মে জায়গা করে নেবে। পাশাপাশি তিনি একজন ব্লগার এবং ভার্চুয়াল উদ্যোক্তা। তিনি ‘Internet Solution Bangladesh’ নামে একটি অনলাইন প্রতিষ্ঠান চালু করেন। প্রতিষ্ঠানটি যাত্রা শুরু করে ২০১৫ সালের ২৮ মার্চ। তিনি ফেসবুকের জন্য কন্টেন্ট তৈরি, বিভিন্ন এজেন্সির হয়ে কনটেন্ট প্রজেকশন এবং ডিস্ট্রিবিউশনের মাধ্যমে ডিজিটাল মার্কেটিং করেন।

ডিজিটাল মার্কেটিংয়ে কেন ও কিভাবে আসা- সে সম্পর্কে তমাল বলেন, আমি মূলত ডিজিটাল মার্কেটিং এর বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ ধাপ নিয়ে ছোট বেলা থেকেই কাজ করছি। ডিজিটাল মার্কেটিং স্ট্রাটেজি, কনটেন্ট প্ল্যানিং অ্যান্ড মার্কেটিং, সার্চ ইঞ্জিন অপ্টিমাইজেশন, গুগল অ্যাডস, ফেসবুক অ্যাডস ফানেল, সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং, ভিডিও মার্কেটিং, ই-মেইল ক্যাম্পেইন, অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং, লীড জেনারেশন, কনভার্সন ফানেল, ন্যাটিভ অ্যাডস সহ আরও কিছু গুরুত্বপূর্ণ মার্কেটিং স্ট্রাটেজি নিয়ে ক্লায়েন্ট সার্ভিস দিচ্ছি।

নিজের ব্যক্তিগত কিছু সাইট আছে সেগুলোতেও নিয়মিত সময় দিচ্ছেন বলে জানান তিনি। সম্ভাবনাময় এ তরুণ মনে করেন, প্রযুক্তিখাতে প্রচুর সুযোগ আছে। মেধা খাটিয়ে সহজেই একটি সুন্দর ক্যারিয়ার তৈরি করা সম্ভব। ভবিষ্যতে প্রত্যেক প্রতিষ্ঠান তাদের সোশ্যাল মিডিয়া দেখাশোনার জন্য জনবল নিয়োগ দেবে। সেক্ষেত্রে ডিজিটাল মার্কেটিংয়ে ভালো ক্যারিয়ার আছে। এ তরুণ বলেন, ‘আমার মূল উদ্দেশ্য একটি সুস্থ সোশ্যাল মাধ্যম গড়ে তোলা।

সাইবার সিকিউরিটি অ্যাওয়ারনেস এবং সঠিক বিজনেস প্ল্যানিংয়ে সহযোগিতা করা।’ তমাল আরও বলেন, ‘যাবতীয় সোশ্যাল সার্ভিসের মাধ্যমে বেকারত্ব দূর করতে এবং সচেতন করতে ভূমিকা রাখাই আমার কাজ।’ এছাড়াও তিনি মিউজিকের প্রতি ভিষন দুর্বল তাই সবকিছুর পাশাপাশি মিউজিক চর্চায়ও উনি সময় দেন। ডিজিটাল মার্কেটার এবং মিউজিশিয়ান তমাল নুহু ইসলাম এর উদ্যোক্তা হিসেবে সফলতার গল্প যে কাউকে অনুপ্রাণিত করবে। তিনি বলেন, সফল হওয়ার জন্য যথেষ্ট পরিশ্রম করতে হয়, অনেক ধৈর্য নিয়ে কাজে লেগে থাকতে হয়। একইসঙ্গে বর্তমানে কঠোর পরিশ্রমের পাশাপাশি দরকার প্রযুক্তিগত দক্ষতা। সম্প্রতি ওনার ফেইসবুক ভ্যারিফাইড পেইজে ২ লক্ষ ফলোয়ার ক্রস করেছে।ভক্ত ও শুভাকাঙ্ক্ষীদের ভালোবাসায় তিনি সর্বদা সিক্ত।

এ বিষয়ে তিনি বলে ভক্ত শুভাকাঙ্ক্ষীরাই আমার অনুপ্রেরণা। তাদের জন্য ভালো কিছু উপহার দিতেই আমার পরিশ্রম ও চেষ্টা থাকে সর্বদা।

উনি সফল কিনা এ প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, ‘সফলতা একটা আপেক্ষিক বিষয়। আমি বিশ্বাস করি সর্বোচ্চ চেষ্টা করে গেলে সব কিছুতেই লক্ষ্যে পৌছানো সম্ভব।’

banner