মোঃমিজানুর রহমান স্বাধীন, চিফ ক্রাইম রিপোর্টার:

অ্যাডভেঞ্চার-৯ লঞ্চে যাত্রী হয়রানি বরিশাল লঞ্চ ঘাটে অ্যাডভেঞ্চার-৯ লঞ্চ কর্তৃপক্ষের ধারা লঞ্চটির সকল যাত্রী হয়রানির শিকার হয়েছে। অ্যাডভেঞ্চার-৯ লঞ্চটি ০৮/০৮/২০১৯ বৃহস্পতিবার রাত ৯.৩০ মিনিটে বরিশাল লঞ্চ ঘাট থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে ছেড়ে যাওয়ার জন্য লঞ্চ কর্তৃপক্ষ অন্যান্য লঞ্চের স্টাফদের সাথে পাল্লা দিয়ে যাত্রীদের লঞ্চটিতে ডেকে তোলেন। এক এক করে পল্টুনে থাকা ঢাকাগামী সকল লঞ্চ ছেড়ে গেলেও নিদৃষ্ট সময় অতিবাহিত হওয়া সত্বেও এডভেঞ্চার-৯ লঞ্চটি ঘাটেই থেকে যায়।

লঞ্চটি ঘাট ত্যাগে বিলম্ব দেখে যাত্রীরা ভেবেছিল ঈদ সংক্রান্ত কারনে হয়তবা লঞ্চটি ঘাট ত্যাগে বিলম্ব করছে, ২ ঘন্টা ত্রিশ মিনিট পর রাত ১২টায় যাত্রীরা জানতে পারে লঞ্চটির ভাঙা পাখা মেরামতের কাজ চলছে। যার কারনে নিদৃষ্ট সময় অতিবাহিত হওয়া সত্বেও লঞ্চটি ঘাটেই থেকে যায়।

৩ ঘন্টা সময় অপেক্ষার পর রাত ১২.৩০ মিনিটের দিকে কিছু যাত্রী রাগে ক্ষোভে লঞ্চ কতৃপক্ষ কে অকথ্য ভাষায় গাল মন্দ করে লঞ্চটি থেকে নেমে যেতে দেখা যায়।

নাম না জানানোর সর্থে লঞ্চটির এক স্টাফ বলেন ঢাকা থেকে আসার সময় লঞ্চটির একটি পাখা ভেঙ্গে যায় সেই পাখা লাগাতে বিলম্ব করছে। এডভেঞ্চার -৯ লঞ্চটি রাত ১২ টা ৫২ মিনিটে বরিশাল লঞ্চ ঘাট থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা হয়ে ৯ ঘণ্টা ৮ মিনিট পর সকাল ৯ টায় রাজধানীর সদরঘাটে পৌঁছাতে সক্ষম হয়।

অবশেষে লঞ্চের পাখা লাগানোর পর অ্যাডভেঞ্চার-৯ লঞ্চটি রাত ১২.৫২মিনিটে রাজধানীর উদ্দেশ্যে বরিশাল লঞ্চ ঘাট ত্যাগ করেন। লঞ্চটিতে দৈনিক খবরের আলো পত্রিকা ও অনলাইন পোর্টাল উচ্চ কন্ঠের চিফ ক্রাইম রিপোর্টার মোঃ মিজানুর রহমান স্বাধীন নিজেও যাত্রী হিসেবে হয়রানির শিকার হয়েছে।

মন্তব্য করুন

আপনার মতামত লিখুন
Please enter your name here