banner

অনুসন্ধান-২

শেখ সবুজ আহমেদ, কুষ্টিয়া:

কুষ্টিয়ার খোকসা পৌরসভার কিছু অসাধু কর্মকর্তা-কর্মচারীদের নিয়ে গড়ে উঠেছে একটি সিন্ডিকেট আর এই সিন্ডিকেটের মাধ্যমে পরিচালিত হয় অফিসের কাজ সহ বিভিন্ন কাজ। অনুসন্ধানে জানা যায়,  খোকসা পৌরসভার সচিবের নেতৃত্বে তার কিছু বিশ্বস্ত কর্মচারীরা এই সিন্ডিকেট পরিচালিত করে। এই সিন্ডিকেটের প্রধান কাজ টেন্ডার নিয়ন্ত্রণ সহ বাড়ির প্ল্যানিং কাজে অবৈধ লেনদেন সহ আরো অনেক কিছু। অনুসন্ধানে আরও জানা যায়, খোকসা পৌরসভা শুরু লগ্ন থেকে ৫৬ টি অনুমোদিত ঠিকাদারি লাইসেন্স ছিল কিন্তু বর্তমান এখন তা ৫ টি তে এসে দাঁড়িয়েছে। আর এই ৫ টি লাইসেন্স এর মাধ্যমে কাজের কমিশনসহ পৌরসভার ইঞ্জিনিয়ারিং সেক্টর নিয়ন্ত্রণ করে এই সিন্ডিকেট। পৌরসভার ইঞ্জিনিয়ারিং সেক্টর টি দুর্নীতির আখড়া হিসেবে পরিচিতি লাভ করেছে ইতিমধ্যে এখানে নজির আছে ড্রেন বা রাস্তা নির্মাণ কাজ শেষ হওয়ার এক মাসের মধ্যেই ফাটল ধরা। এই সেক্টরটি নিয়ন্ত্রণ করে সচিবসহ তার বিশ্বস্ত লোক ইঞ্জিনিয়ার মামুনুর রশিদ টিপু এবং আরো অনেকেই এমনটি অভিযোগে উঠে। এ বিষয়ে ইঞ্জিনিয়ার মামুনুর রশিদ টিপুর কাছে জানতে চাইলে  এ বিষয়ে মুঠোফানের কিছু জানাতে চাইনি এবং অভিযোগগুলো অস্বীকার করে। 

খোকসা পৌরসভা এই সিন্ডিকেটের বিষয়ে খোকসা পৌরসভা সচিব আব্দুল হান্নান এর সঙ্গে মুঠোফোনে কথা বললে তিনি বলেন, এই সিন্ডিকেটের বিষয়ে আমার কিছু জানা নেই।

এই বলে খোকসা পৌরসভার সচিব আব্দুল হান্নান ও ইঞ্জিনিয়ার মামুনুর রশিদ টিপু নিজেকে নির্দোষ প্রমাণ করার চেষ্টা করলেও আমরা দেখতে চাই তারা কতটুকু নির্দোষ, প্রিয় দর্শক চোখ রাখুন আগামী পর্বে দেখাবো এই সিন্ডিকেটের সঙ্গে খোকসা পৌরসভার কোন কর্মকর্তা-কর্মচারী জড়িত। জানতে চাই, আপনাদের কেউ জানাতে চাই সে পর্যন্ত ভালো, থাকুন সুস্থ থাকুন।

banner