banner

সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধিঃ


গত ২৩ ডিসেম্বর স্থানীয় অনলাইন নিউজ পোর্টালসহ স্থানীয় কয়েকটি দৈনিকে “ওপেন হাউজ ডে অনুষ্ঠানে মাদক সম্রাজ্ঞীর বক্তব্য” শিরোনামে প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ জানিয়েছেন ভূক্তভোগী নাসিক ৪ নং ওয়ার্ডের মরহুম রফিক মেম্বারের ছেলে জাহাঙ্গীরের স্ত্রী সুমি আক্তার।


প্রতিবাদ লিপিতে সুমি আক্তার বলেন, ‘‘প্রকাশিত সংবাদে আমার নামে এলাকায় মাদক নিয়ন্ত্রণসহ বিভিন্ন অভিযোগ থাকার কথা উল্লেখ রয়েছে। কিন্তু বাস্তবতা হচ্ছে পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে গত ২২ ডিসেম্বর সিদ্ধিরগঞ্জ থানা পুলিশের উদ্যোগে ওপেন হাউজ ডে অনুষ্ঠানে একমাত্র আমার ৪ নং ওয়ার্ড ও সিদ্ধিরগঞ্জ থানা এলাকাসহ মাদকমুক্ত করার আহবান জানাই। এছাড়া ৪ নং ওয়ার্ডের শিমরাইল এলাকার সকল মাদক ব্যাবসায়ীদের শেল্টার দাতা, মাদক ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে প্রতিবাদকারিদের হুমকি দাতা ,অপরাধ জগত নিয়ন্ত্রণে আমার সহযোগিতার যে কথা উল্লেখ করা হয়েছে তা আদৌ সত্য নয়।
বাস্তব অবস্থা এই যে, আমি আওয়ামীলীগের একজন সক্রিয় কর্মী। কেননা আমি বঙ্গবন্ধুকে ভালোবেসে যুব মহিলালীগে এসেছি। আমি কখনো দলের নাম ভাঙিয়ে কোনো প্রকার চাঁদাবাজি, মাদক কারবারির সাথে জড়িত ছিলাম না থাকবোও না। তাই আমি আবারও বলতে চাই আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা অপপ্রচার করে কোনো লাভ হবে না। একটি কুচক্রীমহল আমার নামে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছেন আমার মান ক্ষুন্ন করার জন্য। তাই আমি এর তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানাই।
এখন আওয়ামী যুব মহিলালীগে অনেক হাইব্রিড নেতী চলে এসেছে। যারা দলের কোনো পদে না থেকে দলের নাম ভাঙিয়ে বিভিন্ন যায়গায় অনৈতিক কর্মকান্ড করছে। তাদের এই অনৈতিক কর্মকান্ডের সাথে আমি সম্পৃক্ত না থাকায় আজ আমার বিরুদ্ধে বিভিন্ন অনলাইন ও প্রিন্ট মিডিয়িায় লেখা লেখি হচ্ছে।


আমি আওয়ামীলীগের রাজনীতি করি। আমি নাসিক ৪ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর পদপ্রার্থী। আমার নামে থানায় কোনো অভিযোগ, মামলা নেই। তাহলে কেনো আমার বিরুদ্ধে এমন অপপ্রচার চালানো হচ্ছে। আমি অন্যায়ের প্রতিবাদ করি বিদায় আমাকে একটি কুচক্রীমহল বিভিন্ন ভাবে হয়রানি করে যাচ্ছে। আমি অন্যায়ের সাথে আপোষ না করে সচ্ছ ভাবে যুব মহিলালীগের রাজনীতি করি তাই আমার সঙ্গে কিছু যুব মহিলালীগের নেত্রীদের সাথে রাজনৈতিক বিরোধ চলছে। তা এখনও বিদ্যমান। আমার ওয়ার্ডে বিভিন্ন সময়ে অপরাধ করার চেষ্টা চালালে আমি তাতে বাধা দেই।

যার কারণে তারা আমাকে মিথ্যাভাবে ফাঁসানোর জন্য চেষ্টা করছেন। আমাকে নানাভাবে হেয়প্রতিপন্ন করার জন্য আমার বিরুদ্ধে একটি কুচক্রীমহলও সক্রিয় রয়েছে যাতে আমি আগামী নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে অংশ নিতে না পারি। তাই সাংবাদিক ভাইদেরকে আমি বলবো আপনারা কোনটা সত্য কোনটা মিথ্যা একটু যাচাই করে নিউজ করবেন। যেনো সাধারন মানুষকে বিভ্রান্তিতে পরতে না হয় বলে জানিয়েছেন সুমি বেগম।
banner