banner

পবিত্র কাবা ঘর ধোয়া হবে। আজ ফজর নামাজের কিছুক্ষণ পর গোলাপজলে মিশ্রিত জমজম পানি দিয়ে ধোয়ার কার্যক্রম শুরু হবে। এতে সৌদির কর্তৃপক্ষের গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিবর্গ অংশ নেবেন। সৌদি বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজের পক্ষে তাঁর উপদেষ্টা ও মক্কার গভর্নর প্রিন্স খালেদ বিন ফয়সাল এতে অংশ নেবেন। 

প্রতি বছর ১৫ মহররম পবিত্র কাবা ঘর ধোয়ার কার্যক্রম পালিত হয়। মক্কা ও মদিনার পবিত্র দুই মসজিদ পরিচালনা পর্ষদ এর আয়োজন করে। গোলাপজল মিশানো জমজম পানিতে নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত কাপড়ের টুকরো ভিজিয়ে রাখা হয়। এরপর ভেজা কাপড় দিয়ে ভেতর থেকে কাবার দেয়াল ঘষে পরিষ্কার করা হয়। 

কাবা ঘর ধোয়ার ঐতিহাসিক এ কার্যক্রমে অংশ নেবেন, কাবা ঘরেরর দ্বাররক্ষী শায়খ সালেহ আল শায়বা, মক্কার গভর্নর প্রিন্স খালেদ বিন ফয়সাল ও মক্কা ও মদিনার পবিত্র দুই মসজিদের প্রধান শায়খ ড. আবদুর রহমান আল সুদাইস।

হারামাইন পরিচালনা পর্ষদের প্রধান শায়খ ড. আবদুর রহমান আল সুদাইস বলেন, পবিত্র কাবা ঘর ধোয়ার আনুষ্ঠানিকতা মহানবী (সা.)-এর যুগ থেকে কালপরিক্রমায় চলে আসছে। যুগে যুগে খোলাফায়ে রাশেদা ও পরবর্তী খলিফা ও গভর্নররা তা পালন করেছেন। 

শায়খ আল সুদাইস আরো বলেন, ‘করোনা সংক্রমণ রোধে  স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে ধোয়ার কার্যক্রমের প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। এছাড়াও সৌদির কর্তৃপক্ষের অগ্রাধিকার ভিত্তিতে স্বাস্থ্য সুরক্ষায় সতর্কতামূলক সব ধরনের পদক্ষেপ নেওয়ার কথা জানান তিনি। 

সূত্র : হারামাইন ও আল ইত্তিহাদ 

banner